চাকরি না পেয়ে উচ্চ-শিক্ষিত যুবকের আত্মহত্যা



চাকরি না পেয়ে উচ্চ-শিক্ষিত যুবকের আত্মহত্যা Image
চাকরি না পেয়ে উচ্চ-শিক্ষিত যুবকের আত্মহত্যা

মির্জাপুরে (টাঙ্গাইল) মনিরুল ইসলাম (৩০) নামে এক যুবক চাকরি না পেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।



মির্জাপুরে (টাঙ্গাইল) মনিরুল ইসলাম (৩০) নামে এক যুবক চাকরি না পেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে উপজেলা সদরের বংশাই রোডে অবস্থিত শ্বশুরবাড়ির এক রুমে এই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে।


নিহতের পরিবার জানায়, দীর্ঘদিন থেকেই মনিরুল ইসলাম তার  স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে শ্বশুর বাড়িতেই বসবাস করছেন।  গত সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি) রাতেও  তিনি স্বাভাবিক ছিলেন। প্রতিদিনের মতো নিজের শোবার ঘরেই ঘুমান। সকালে ঘুম থেকে উঠে বাড়ির নিচে যান । ৯টার দিকে বাসায় আসেন। বাসায় আসলে স্ত্রী তাকে নাশতা খাওয়ার জন্য বললে, তিনি পরে খাবেন বলে নিজের ঘরে ভিতরে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দেন । এই সময় তার এই অস্বাভাবিক আচরণ দেখে স্ত্রী আইভি ও শাশুড়ি ঘরের দরজা খোলার চেষ্টা  করতে থাকেন।  বেশ কিছুক্ষণ হয়ে গেলেও দরজা খোলা না হলে এবং ভেতর থেকে কোনো সাড়া-শব্দ না পেয়ে চিৎকার করেন স্ত্রী আইভি ও শাশুড়ি।তাদের চিৎকার শুনে পাশের ভবনে কর্মরত শ্রমিকরা এসে স্টিলের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। ঘরে ঢুকে তারা দেখতে পান মনিরুল গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। আত্মহত্যার খবর পেয়ে মির্জাপুর থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

আরো পড়ুন : সানাই নগ্ন হতেও রাজি

মনিরুলের স্ত্রী আইভি আক্তার জানান, 'উচ্চশিক্ষিত হওয়া সত্ত্বেও দীর্ঘদিন যাবৎ বেকার জীবন অতিবাহিত করছিলেন মনিরুল।  তিনি এ ব্যাপারে মানসিকভাবে খুব বিপর্যস্ত ছিলেন। রাতে তার মা ও বোনের সঙ্গে ফোনে কথাও বলেছেন। সকালে যশোর যাওয়ার কথা ছিল মনিরুলের '।

যশোরের মনিরামপুর উপজেলার বাসুদেবপুর গ্রামের আনোয়ার গাজীর ছেলে নিহত মনিরুল ইসলাম । তার স্ত্রী আইভি আক্তার সরকারি সাদাত বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক। তবে মনিরুল বেকার ছিলেন। মনিরুল ও আইভির সংসারে পাঁচ বছরের ছেলে মুসা ও পাঁচ মাস বয়সী আরিশা নামে কন্যা রয়েছে।

আরো পড়ুন : মার্কিন তরুণী প্রেমের টানে ঝিনাইদহে

চাকরি না পেয়ে উচ্চ-শিক্ষিত যুবকের আত্মহত্যা চাকরি না পেয়ে উচ্চ-শিক্ষিত যুবকের আত্মহত্যা Reviewed by ChhondoMela on February 05, 2019 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.